♥বউ♥ পর্ব:৪ writer: অন্না


,
শুভ::::( দাতঁ চিপে) খুব হাসি পাচ্ছে না? সব শোধ তুলবো আমি,,,,
,
তিশা::”'( সবাইকে শুনিয়ে) কি বলছো তুমি এসব? সবাই কি ভাববে?
,
শুভ হা করে তাকিয়ে আছে তিশার দিকে….
,
শুভর মা:::: কি হয়েছে রে মা?
,
তিশা:::’ আম্মু তোমার ছেলে আমাকে খাইয়ে দিতে চাচ্ছে,,,,,কিন্তুু তোমাদের সামনে আমি কি করে,,,,,,,
,
শুভ::::what”!!!!!!
,
শুভর মা:::: আরে গাধা এটা আর এমন কি কথা,দেনা বউমা কে খাইয়ে,আমরা কিছু মনে করবো না,,,,কি গো শুভর আব্বু বলো,,,
,
শুভর বাবা:::: মনে করার কি আছে,,,,, জানো মামুনি তোমার শাশুড়িকে তো আমি এখনও খাইয়ে দেই,,,,,
কি গো তাই না?
,
শুভর মা:::: আহ্ কি বলছো এসব,,,, নতুন বউ,,,,
,
তিশা:::: তো কি হয়েছে আম্মু আমি তো তাই না,,,,how sweet আব্বু,,,,, ( কোথায় বাপ,,আর কোথায় ব্যাটা,,, কপাল টাই খারাপ আমার)
,
শুভ:::: না বাবা,,,,, তেমন কিছু না,,,ও,,,,,তো
,
তিশা:::তুমি কি বলতে চাচ্ছো আমি মিথ্যা বলেছি? আচ্চা ঠিক আছে,আমাকে খাইয়ে দিতে হবে না,,আপনি কলেজে যান,,,,,
,
শুভর বাবা:::: কলেজে যাবে মানে,,,,এই ইডিয়েট মামুনি কে খাইয়ে দে,,,না হলে তোর কলেজে টিচারগিরি করা বন্ধ আর এ বাড়িতে ভাত বন্ধ,,,,
,
শুভ:::::(অসহায় দৃষ্টিতে) আম্মু,,,,,,,
,
শুভর মা;::::যত তারাতারি খাইয়ে দিবি তত তারাতারি তুই কলেজে যেতে পারবি,,,,,আমরা আছি তো কি হয়েছে,,,,নে তারাতারি খাইয়ে দে,,,,
,
শুভ:::::( তিশার বাচ্চা তোকে আমি লেকের পানিতে চুবিয়ে মারবো,,বদমাইশ মেয়ে,আল্লাহ্ গো আমার জীবনটা পানি পানি করে দিলো এই মেয়ে,,,,দরি ফেলো আমি উঠে যাই)
,
তিশা::::: কি গো খাইয়ে দিবে বলে চুপচাপ আছো কেনো?তোমার বেশি লজ্জা লাগলে বলো রুমে গিয়ে,,,,,
,
শুভ::::: একটা থাপ্পর মেরে দিবো,,,,,,
,
তিশা::::( আমায় বকা দেওয়া,দারাও শুভ বাবু তোমার খবর নিচ্ছি)এ্যা,,,,,এ্যা,,,,,,( ন্যাকা কান্না করে),
,
শুভর বাবা::::: এই ইডিয়েট্, তোর এত্ত সাহস তুই আমার সামনে আমার মামুনি কে মারতে চাস,,,একটা চড় মেরে তোমার দাতঁ কপাটি ফেলে দিবো বাদর ছেলে,,,,,,,,
,
তিশা::::: (শুভর দিকে তাকিয়ে চোখ মেরে মিট মিট করে হেসে) এ্যা,,,,,আব্বু আমি চলে যাবো,,,,উনি আমায় কাল থেকে বকা দিচ্ছে,,,,,এখন মারতে চাইছে,,,,,আমি আর থাকবো না,,,,,,এ্যা,,,,,,,,,,,
,
শুভর বাবা::::: কি আমার বাড়িতে আমার অজান্তে এতো কিছু আর আমি জানি না,,,, এত্ত সাহস হয়ে গেছে তোর,,,,শুভর আম্মু ওর মানিব্যাগ টা বের করে নাও,,,,ওর হাত খরচ বন্ধ,,,,,,,,
,
শুভ:::: আব্বু,,,,,,এটা কিন্তুু বেশি বেশি হচ্ছে,,,,একটা বাহিরের মেয়ের সামনে,,,,
,
শুভর বাবা::::: বাহিরের মেয়ে,,,,,,কে বাহিরের মেয়ে,,,পিটিয়ে তোমার পিঠের ছাল তুলে নিবো,,,,তারাতারি সরি বলো তিশাকে,,,,,
,
শুভ::::: পারবো না,,,,
,
শুভর বাবা::::: কি বললি তুই????
,
শুভ:::: s,,,,,,,,s,,,,,,so
,
শুভর বাবা::::’ ঠাটিয়ে একটা দিবো,,,,,তারাতারি sorry বলে মামুনিকে খাইয়ে দে,,,,,
,
শুভ:::::( আল্লাহ্ এ কোন চিপায় ফেললে আমায়) ওই তিশা,,,,,,i am sorry,,,,,,,
,
তিশা:::: লাগবে না আমার আপনার sorry, আমি বাসায় চলে যাবো,,,,
,
শুভ::::( যা না রাক্ষসী, তোকে কে আটকে রেখেছে,আমি বেচে যাই) কখন যাবে?
,
শুভর মা:::: ওই বদ পোলা তুই কি বলিছিস আমার মেয়েটাকে,,,,,বকা দিয়েছিস,, রাগ ভাঙানো বাদ দিয়ে বাপের বাড়ি যেতে বলছিস,,,,,,
,
শুভ::::: বারে,,,,তোমরা যে কখন থেকে আমায় ঝেরে যাচ্ছো তার বেলা,, আমি তো শুধু যাস্ট,,,,,,
,
এর মধ্যে শুভর বাবা শুভর ফোন,বাইকের চাবি আর মানিব্যাগ টা কেরে নিলো,,,,
,
শুভর বাবা:::: তারাতারি বউমার রাগ ভাঙিয়ে খাইয়ে দে,,,নয়তো তুই কিচ্ছু পাবি না,,,,,,
,
শুভ’::::: আব্বু,,,,,,,
,
শুভর আব্বু’::::: আর একটা যেনো সাউন্ড না হয়,,,,,
,
শুভ তিশার দিকে তাকিয়ে দেখে তিশা ওর দিকে তাকিয়ে তাকিয়ে মুচকি হাসছে,,,
,
শুভ::::::( আমায় বকা খাইয়ে তুই খুব খুসী না,,, তোকে আমি দেখে নিবো) i am sorry tisa,,,,,,
,
তিশা:::: মুখ ফিরিয়ে অন্য দিকে ঘুরে বসে পরে,,,,,
,
শুভ::::: ( তিশার সামনে গিয়ে) sorry রে বাপ আমি আর কখনও আপনাকে বকা দিবো না,,,,এই বারের মতো মাফ করে দিন plz,,,,আপনি মাফ না করলে আমি কলেজে যেতে পারবো না,,,,,
,
তিশা:::: ঠিক আছে,,,তাহলে কান ধরে হাটু গেরে বসে sorry বলো,,,,,
,
শুভ:::”what? impossible,,,,,
,
তিশা:::: তাইলে কোনো মাফ পাবেন না,,,,সরেন এখান থেকে,,,,,,
,
শুভ অসহায় দৃষ্টিতে ওর বাবা মার দিকে তাকাচ্ছে আর উনারা মিটিমিটি হাসছে,,,,
,
শুভ:::::( অসহায় দৃষ্টি নিয়ে)শুনেন,,, এখানে মা,বাবা আছে,,,উনারা কি ভাববে বলেন?
,
তিশা::::: আম্মু,,,,আব্বু,,,,তোমার ছেলে যদি হাটু গেরে আমার কাছে মাফ চায় তোমরা কিছু মনে করবেন??
,
শুভর আম্মু+আব্বু:::: না,,,,,,,,,,না আমরা কিচ্ছু মনে করবো না,,,,,তোমরা চালু রাখো,,,,
,
তিশা ::::: দেখলেন তো এবার তো বসেন,,,,,,,,
,
শুভ বুছতে পারলো ওর আর করার কিছু না,,,,তিশা নামের রাক্ষসী টার কাছে ওকে হার মানতেই হলো,,,,, শুভ হাটু গেরে বসে কান ধরে তিশার কাছে sorry বললো,,,,,,
,
তিশা::::: its ok my dear sweet husband,,,,,, নিন এবার খাইয়ে দিন,,,,,
,
শুভ::::::( তোর কপালে খারাপ আরে রে তিশা বদমাইশ,,,আমার ইরাও কখনও আমার সাথে এমন করে নি,,)
,
শুভ তিশা কে খাইয়ে দিচ্ছে আর তিশা শুভকে,,,, খাইয়ে দেবার পরে শুভ কলেজে চলে যায়,,,,,,আর তিশা গিয়ে শুভর মা এর সামনে গিয়ে চুপচাপ দাড়ায়,,,,
,
শুভর মা:::: কি রে কি হলো?
,
তিশা::::: sorry,,,,,
,
শুভর মা:::: কেনো?
,
তিশা:::: সকাল এর ঘটনার জন্য,,,,
,
শুভর মা:::: এই পাগলি যা করেছিস আমার ছেলেকে ভালোবেসে করেছিস,,,,আমি কিছু মনে করিনি,,,,,আর আমি কেনো তোর আব্বুও কিছু মনে করে নি,,,,আমরা তো মজাই পেয়েছি,,,,,,
,
তিশা::::: সত্তি??
,
শুভর মা:::: হ্যা সত্তি,,,,
,
তিশা::::: তোমরা অনেক ভালো আম্মু,,,ভাইয়া ভাবি কখনই আমাকে মা,বাবার কমতি বুঝতে দেয় নাই,,,,এ কয়েকদিনে তোমারা কতোটা আপন করে নিয়েছো আমায়,,আমার মা,বাবা থাকলে ও হয়তো এতোটাই ভালো বাসতো,,,,,,
,
শুভর মা:::: এই মেয়ে কাদছিস কেনো হ্যা,,,আবার যদি কেদেছিস তাহলে একটা চড় মেরে দিবো,,, ,, আজ থেকে আমরাই তোর,,,
,
তিশা;:::: মা,বাবা,,,,,
,
শুভর মা::::হ্যা,,,,এখন যা চা টা তোর আব্বুকে দিয়ে আয়,,,,,,,,,
,
তিশা:::::( এইটাই সুযোগ আমার কাজ টা সেরে ফেলতে হবে,,এই শয়তান টা আসার আগেই)আচ্ছা দাও,,,,,,,,
,
,,,
শুভর বাবা:::: আরে মামুনি তুমি চা আনতে গেলে কেনো,,তোমার শাশুরি কোথায়?
,
তিশা:::: কেনো আমি আনলে সমস্যা কি? আমি কি তোমার মেয়ে না?
,
শুভর বাবা::::: তুমি তো আমার মেয়েই মামুনি,,,,আশরাফ(তিশার বাবা) মারা যাবার আগে তোমাকে আমার হাতে তুলে দিয়ে গেছে আমার ছেলের বউ হিসাবে,,,,,,, আমি ধন্য আশরাফের মেয়েকে নিজের ছেলের বউ হিসেবে পেয়ে,,,,
,
তিশা::::: আমিও অনেক গর্ব বোধ করছি,,, তোমাদের পরিবারের একজন হয়ে আসতে পেরে,,,,,,,
,
শুভর বাবা:::: একটা কথা বলতেই হচ্ছে মামুনি,,,,
,
তিশা:::: কি?
,
শুভর বাবা:::: আমার দলের একজন সাপোর্টার পেলাম আমি,,,, এখন ওই হনুমানটানে পথে আনতে পারবো,,,,,আমি আর তুমি মিলে ওকে শায়েস্তা করবো,,,,ঠিক আছে?
,
তিশা::::: একগাল হেসে.ঠিক আছে,,,,,
,
শুভর বাবা:::: আর ওই বাদরটা তোমাকে কিছু বললে সবার আগে আমায় বলবি,,,আমি ওকে বকে দিবো,,,,,
,
তিশা’::::: ঠিক আছে আব্বু,,,,,,আর আমার একটা কথা ছিলো,,,,
,
শুভর বাবা:::: হ্যা বলো,,,
,
তিশা:::: আপনি একটু উনাকে বলবেন আমাকে যেনো উনার কলেজে ট্রানেসফার করে নিয়ে আসে,,,,
,
শুভর বাবা:::: হ্যা তা তো অবশ্যই,,,,আমি সব ব্যবস্থা করিয়ে দিবো,,,,,
,
তিশা:::::( ওয়াহ্ তিশা u r the best) ঠিক আছে আমি যাই,,,,
,
সন্ধ্যার পরে শুভ বাসায় আসে,,,,আর শুভর মা চিল্লাতে লাগে,,,,
,
শুভর মা::: তোর আক্কেল জ্ঞ্যান কবে হবে হ্যা? নতুন বিয়ে করা বউ রেখে সারাদিন কই ছিলি?
,

শুভর বাবা:::কি রে কাজ হয়েছে?
,
শুভ::::: জি হয়েছে,,,,কাল থেকে উনি কলেজে যেতে পারবে,,,,
,
শুভ রুমে গিয়ে হা হয়ে গেলো,,,,,,,,,,
,
be continue ♥♥♥♥
,

বউ টা মনে হয় কম বেশি সবারই ভালো লাগবে,,,,আমার খুব পছন্দের একটা পার্ট তিশা,,সে অন্য দের মতো নয়,,, মনে হয় সবারই পছন্দ হবে ওকে,,,,,

তোমাদের ভালোলাগাই আমার কাম্য ♥♥♥♥
অনেক ধন্যবাদ তোমাদের যারা আমার গল্প পরো,,,,,

পোষ্টটি আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করুন !
Share on Facebook
Facebook
0Pin on Pinterest
Pinterest
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin

Leave a Reply